কর্মসূচি নির্ধারণে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক আজ!

0
12

ঢাকাঃ
কর্মসূচি নির্ধারণে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠক আজ।
বি. চৌধুরীর কাছে জাফরুল্লাহর দুঃখ প্রকাশ।

আগামী নির্বাচনকে অবাধ ও অংশগ্রহণমূলক করতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা বৈঠকে বসবেন। রাজধানীর উত্তরায় আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রবের বাসভবনে এ বৈঠক হবে। বৈঠকে বিএনপি, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি, নাগরিক ঐক্য ছাড়াও এই প্রক্রিয়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত নেতারা অংশ নেবেন। এদিকে, গতকাল রাতে বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বারিধারার বাসভবনে যান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম উদ্যোক্তা ডা. জাফরুল্লাহ্‌ চৌধুরী।

বাসভবন থেকে বেরিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ্‌ চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেছেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ঘোষণার দিন বি চৌধুরীর সঙ্গে তাদের ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তারা সবাইকে নিয়ে কাজ করতে চান। কাউকে বাদ দেওয়া হবে না। এ সময় তিনি জাতীয় ঐক্যে বিকল্পধারার অংশগ্রহণের বিষয়ে অনুরোধ করলেও বি চৌধুরী তাতে সাড়া দেননি। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জাফরুল্লাহ্‌ বলেন, বি. চৌধুরীকে বাদ দিয়ে কিছু করা যায় নাকি? তিনি সবাইকে নিয়ে ঐক্য করতে চান।

গতকাল সোমবার বারিধারার বি. চৌধুরীর বাসভবন থেকে বের হয়ে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে রাত সাড়ে ৯টা থেকে তিনি সাড়ে ১০টা পর্যন্ত বি. চৌধুরীর সঙ্গে বৈঠক করেন। এ সময় বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নানও উপস্থিত ছিলেন জাফরুল্লাহ্‌ চৌধুরী চলে যাওয়ার পর মাহী বি. চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, ডা. জাফরুল্লাহ্‌ বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট বি. চৌধুরী ও দলের মহাসচিব মেজর (অব.) মান্নানের সঙ্গে কথা বলেছেন। গত শনিবারের ঘটনার জন্য ডা. জাফরুল্লাহ্‌ দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, বি. চৌধুরীকে আমন্ত্রণ জানিয়ে তারা সেখানে থাকতে পারেননি, এটা সঠিক হয়নি। এ কথাটিই তিনি বলতে এসেছেন।

বিকল্পধারা একঘরে হয়ে যাচ্ছে এমন কথা উঠেছে বলে বি. চৌধুরী ও ডা. জাফরুল্লাহ্‌র বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। এ বিষয়ে মাহী বি চৌধুরী বলেন, তারা বলেছেন, তারা একঘরে হয়েই থাকতে চান। বৃহত্তর অট্টালিকার বাইরে আমরা ছোট্ট একটি কুঁড়েঘর বানাব। সেই ঘরে সত্যের, মুক্তিযুদ্ধের ও জিয়াউর রহমানের রাজনীতি থাকবে। আমরা আমাদের অবস্থান থেকে এক ইঞ্চিও নড়ব না।

বিকল্পধারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটে যাবে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে মাহী বলেন, আজকের দুঃশাসনের সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই। বিকল্পধারা জন্মের পর থেকে কোনো জোটে যেতে পারেনি। সুতরাং এ ধরনের কোনো সম্ভাবনা নেই।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে মাহী বলেন, তারা ডা. জাফরুল্লাহ্‌ চৌধুরীকে বলেছেন, আপনারা স্বাধীনতা বিরোধীদের ছাড়লে, বিএনপিকে স্বাধীনতা বিরোধীদের হাত থেকে বের করে আনতে পারলে এবং ভারসাম্যের রাজনীতি দিতে পারলে আপনাদের জন্য দরজা সব সময় খোলা থাকবে।

এদিকে সূত্র জানায়, আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশের পর এখন দাবি আদায়ে আন্দোলনে নামার পরিকল্পনা করছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা। গতকাল সোমবার তারা একাধিক অনানুষ্ঠানিক বৈঠক করেন। দুপুরে ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে তার চেম্বারে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া এবং গণফোরামের নেতারা বৈঠক করেন। গুলশানে মাহমুদুর রহমান মান্নার বাসায় বৈঠক করেন নাগরিক ঐক্যের নেতারা। বিকেলে জেএসডি কার্যালয়ে বৈঠক করেন দলটির শীর্ষ নেতারা।

আজকের এই বৈঠকে আন্দোলনের কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা করবেন তারা। এক্ষেত্রে জেলায় জেলায় সভা-সমাবেশসহ বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচি থাকবে। এর বাইরে ঐক্যফ্রন্টের পরিধি বাড়ানোর বিষয়েও আলোচনা হতে পারে।

এ বিষয়ে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ঘোষণার পর তারা এখনও একত্র হতে পারেননি। তবে সবার সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। আজ বৈঠকে বসার সম্ভাবনা রয়েছে। এখানে ভবিষ্যৎ কর্মসূচি ছাড়া আরও অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা হতে পারে। তিনি বলেন, তারা চেষ্টা করবেন শান্তিপূর্ণ উপায়ে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছাতে। সভা-সমাবেশ-গণসংযোগের মাধ্যমে মানুষের সামনে তাদের কথাগুলো তুলে ধরতে। দেশের মানুষ একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে আজ ঐক্যবদ্ধ। তারা এই ঐক্যকে সুসংহত করতে উদ্যোগ নেবেন।
// সুত্রঃ সমকাল//

Leave a Reply