তিন শিশুকে পরিবারে ফেরাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক

0
4

জয়নব, নাজমিন, শাহিনুর। গত মাসে হারিয়ে যাওয়া এই তিন শিশু এত দিন ছিল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে। ঠিকানা বলতে না পারায় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না তাদের পরিবারকে। কিন্তু এখন ফেসবুকের কল্যাণে বাবা-মায়ের কোল ফিরে পেয়েছে তারা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ১১ মার্চ সকালে শাহ আলী থানার নিউ ব্লকের মসজিদুল মোকাররম মসজিদের সামনে কাঁদছিল আট বছরের জয়নব। সে তার নাম বলতে পারলেও বাবা-মার নাম বা ঠিকানা বলতে পারছিল না। পরে তাকে নেওয়া হয় তেজগাঁওয়ের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে।

পুলিশ আরও জানায়, ২৩ মার্চ সন্ধ্যায় খিলগাঁও ২ নম্বর কাউন্সিলর অফিসের কাছে পাওয়া যায় নাজমিন নামে ১৩ বছর বয়সের এক শিশুকে। এর পরদিন সন্ধ্যায় শাহ আলীর ৭ নম্বর রোডে পাওয়া যায় শাহিনুরকে (৮)। সে–ও বাবা-মায়ের ঠিকানা বলতে পারছিল না। পরে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে ঠাঁই হয় তাদের।

এই তিন শিশুসহ মোট চারজনের প্রাপ্তি সংবাদ গত ২৭ মার্চ ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সংবাদভিত্তিক অনলাইন পোর্টালে প্রকাশ করা হয়। তারপর সেখান থেকে শেয়ার করা হয় ডিএমপির ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে। সেই খবর ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ার পর তিন শিশুর পরিবারের খোঁজ পায় পুলিশ। গত শুক্রবার বাংলাদেশ পুলিশ নেটওয়ার্ক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সহায়তায় জয়নব, নাজমিন ও শাহিনুরকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগ) সুমন কান্তি চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, ‘ফেসবুকে শেয়ার হওয়ার পর খবরটি ভাইরাল হয়ে যায়। পরে শিশুদের পরিবারের পক্ষ থেকে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিন শিশুকে আমরা পরিবারের কাছে পৌঁছে দিয়েছি।’ সুত্রঃ প্রথম আলো।

Leave a Reply