ফাঁস হওয়া প্রশ্ন পেলে শিক্ষার্থীও ছাড় পাবে না: বেনজীর

0
18
র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ

প্রশ্নপত্র ফাঁসের নামে একটি চক্র প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে জানিয়ে র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ ওই ফাঁদে কাউকে পা না দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের মতো জঘন্য অপরাধ রোধে র‌্যাবে সতর্ক আছে। যদি কোনো শিক্ষার্থীর কাছে পরীক্ষার আগে ফাঁস হওয়ার নামে সত্য বা মিথ্যা প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়, তাহলে এবার ওই শিক্ষার্থীকেও আইনের আওতায় নেওয়া হবে। এতে ওই শিক্ষার্থীর ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে গেলেও দায়দায়িত্ব সংশ্নিষ্ট শিক্ষার্থী ও তার অভিভাবকদের নিতে হবে।

সোমবার র‌্যাব সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

র‌্যাব ডিজি বলেন, ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র কিনতে র‌্যাবও ছদ্মবেশে ওত পেতে আছে। সোস্যাল মিডিয়াগুলোতে নজরদারি ছাড়াও সারাদেশে গোয়েন্দা নজরদারি চালাচ্ছে র‌্যাব। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যান্য সংস্থাও তৎপর রয়েছে।

সোমবার শুরু হওয়া এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর আগে প্রশ্ন ফাঁসের নামে প্রতারক চক্রের সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, তাদের কাছে কোনো প্রশ্নপত্র পাওয়া যায়নি। তারা শুধু প্রশ্নপত্র দেওয়ার কথা বলে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিল।

বেনজীর আহমেদ বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের চেষ্টাকারীরাও সন্ত্রাসী। এসব সন্ত্রাসীকে জঙ্গিদের মতো করেই নিশ্চিহ্ন করা হবে। এজন্য শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ সবার সহযোগিতা দরকার। দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধভাবে এই পাপ নির্মূল করতে হবে।

প্রশ্নপত্র ফাঁসের প্রতারণার ফাঁদে পা না দিতে তিনি সবাইকে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, এজন্য সারাদেশে শিক্ষক, পরীক্ষার্থী সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। কেউ প্রশ্ন ফাঁসের তথ্য পেলে র‌্যাবকে জানাতে অনুরোধ করেন তিনি। সুত্রঃ সমকাল।

Leave a Reply