বাংলাদেশের ৭৫% মানুষ ব্যাপক ক্ষতির মুখে! কারণটা জানলে ঘুম উড়বেই!

0
10

ঢাকাঃ তাপমাত্রা বৃদ্ধি ও অনিয়মিত বৃষ্টিপাতের কারণে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের তিন চতুর্থাংশ মানুষের জীবনযাত্রার মানে অবনমন ঘটবে। এমনটাই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশ্ব ব্যাংক। বুধবার দক্ষিণ এশিয়ার জীবনমানে তাপমাত্রা ও বৃষ্টিপাতের পরিবর্তনের প্রভাব শীর্ষক বিশ্ব ব্যাংকের এক প্রতিবেদনে এই তুলে ধরা হয়েছে।

এই প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, বিশ্ব ব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্টউইগ শেফার ও শীর্ষ আঞ্চলিক অর্থনীতিবিদ মুথুকুমারা মানি উপস্থিত ছিলেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ৬০ বছরে এই অঞ্চলের তাপমাত্রা বাড়ছে এবং এই ধারা অব্যহত থাকবে।

এর ফলে কৃষি, স্বাস্থ্য ও অন্যান্য খাতে প্রভাব পড়বে। বাংলাদেশে প্রতি বছর এক থেকে দেড় শতাংশ হারে তাপমাত্রা বাড়ছে। প্যারিস জলবায়ু সম্মেলনের ঝুঁকি মোকাবেলার বিষয়গুলো যদি না দেখা হয় তাহলে ২০৫০ সাল নাগাদ তাপমাত্রা ২ দশমিক ৫০ শতাংশ হারে বাড়তে পারে। এর ফলে ১৩ কোটি ৪০ লাখ মানুষের জীবনমানের অবনমনের পাশাপাশি বাংলাদেশ জিডিপির ৬ দশমিক ৭ শতাংশ হারাবে বলে প্রতিবেদনে পূর্বাভাসে দেওয়া হযেছে।

এতে আরও বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ২০৫০ সালের মধ্যে বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি ঝূকিপূর্ণ অঞ্চল হবে চট্টগ্রাম ও বরিশাল। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, জলবায়ু মোকাবেলায় কম সুদে আরও ঋণ দরকার।
সুত্রঃ kolkata24x7

Leave a Reply