বিএনপি চালাচ্ছে কে, প্রশ্ন কাদেরের!

0
12
সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বৈধ সরকার দেশ চালাচ্ছে। এখানে বিএনপি কোন অজানা নেপথ্য শক্তি আবিস্কার করেছে? সেই শক্তিটা আমরা জানতে চাই। দেশে অস্থিরতা ও অশান্তি তৈরির আর কত পাঁয়তারা বিএনপি করবে? বিএনপি কে চালাচ্ছে?

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের যুব ও ক্রীড়া উপ-কমিটির মতবিনিময় সভায় ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। উপ-কমিটির চেয়ারম্যান মোজাফ্‌ফর হোসেন পল্টু ও সদস্য সচিব হারুনুর রশিদসহ অন্য নেতারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছিলেন, ‘আমার সন্দেহ মাঝে-মধ্যে আওয়ামী লীগ কি সত্যি দেশ চালাচ্ছে? আওয়ামী লীগ কি দেশ চালাচ্ছে? তা না হলে কে চালাচ্ছে?’

মির্জা ফখরুলের এই বক্তব্যের জবাবে বিএনপিকে উদ্দেশ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, এক দলে এত রূপ কেন? টেমস নদীর পাড় থেকে কেউ কি সুতা টানে?

আগামী নির্বাচনের আগে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনের আগে কেউ যেন অরাজকতা-অশান্তি তৈরি করতে না পারে, সে জন্য সতর্ক থাকতে হবে। দেশ-বিদেশে বৈঠক করে চক্রান্ত করা হচ্ছে। অত্যন্ত ঠাণ্ডা মাথায় অগ্রসর হতে হবে। দায়িত্বশীল আচরণ করতে হবে। দায়িত্বশীল পদে থেকে দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ করা যাবে না।

রংপুরের আইনজীবী ও আওয়ামী লীগ নেতা রথীশ চন্দ্র ভৌমিকের নিখোঁজ হওয়া ও পরে লাশ উদ্ধার প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখানে প্রথমে অন্য কিছু ধারণা করা হয়েছিল। পরে জানা গেল ঘটনা অন্য। তাই এসব ঘটনা থেকে একটি বিষয় স্পষ্ট, কোনো বিষয়ে না জেনে মন্তব্য করা যাবে না।

তিনি বলেন, মিসিং (নিখোঁজ) নিয়ে দেশে অনেক কিছু হচ্ছে। কোন মিসিং কারা করাচ্ছে? কেন হচ্ছে? এ বিষয়গুলো পরিস্কার হওয়ার আগে প্রতিক্রিয়া দিতে সাবধান হওয়া দরকার। দায়িত্বশীল নেতাদের কাণ্ডজ্ঞানহীন বক্তব্য অপ্রত্যাশিত পরিস্থিতির সৃষ্টিতে সুযোগ করে দেবে।

সভায় নারীদের উপস্থিতি না দেখে ক্ষুব্ধ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সব জায়গায় নারীর অংশগ্রহণ বাড়ছে। অথচ এখানে কোনো নারী নেই। এ সময় উপ-কমিটির নেতারা বলেন, উপ-কমিটিতে নারী সদস্যরা রয়েছেন। তবে অনেকে মতবিনিময় সভায় উপস্থিত হতে পারেননি। এর জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে। কারণ আগামী নির্বাচনে নারী ভোটার আর নতুন ভোটাররাই আওয়ামী লীগকে জেতাবেন। সুত্রঃ সমকাল।

Leave a Reply