বিশ্বের সবচেয়ে বড় প্রতিরক্ষা চুক্তি করতে চলেছে ভারত

0
6

এবার আঁটঘাট বেঁধেই ময়দানে নামছে ভারতীয় বায়ুসেনা ৷ বিশ্বের সবথেকে বড় চুক্তি করার জন্য তৈরি তারা৷ প্রায় ১১০টি ফাইটার জেটের অর্ডার দিতে চায় তারা৷ এর জন্য প্রায় ১ লাখ কোটি টাকা পর্যন্ত দিতে প্রস্তুত ভারতীয় বায়ুসেনা ৷

১১০টি ফাইটার জেটের জন্য বিশ্বের সমস্ত কোম্পানির কাছে তাদের প্রস্তাব পাঠানোর আবেদন জানানো হয়েছে৷ মেক ইন ইন্ডিয়া উদ্যোগের আওতায় এটি তৈরি হতে চলেছে৷ বায়ুসেনার পক্ষ থেকে সিঙ্গল ও টুইন সিটের জেট তৈরির কথা বলা হয়েছে ৷

ভারত এর আগে ১২৬টি ফাইটার জেটের চুক্তি বাতিল করেছে৷ দসাল্ত অ্যাভিয়েশন এস এ-র থেরে এটি নেওয়া কথা হয়েছিল৷ কিন্তু এর পরিবর্তে ৩৬টি রাফায়েল এয়ারক্র্যাফ্ট নেওয়ার কথা ঘোষণা করে ৷

১১০টি ফাইটার জেটের জন্য একাধিক প্যারামিটার রেখেছে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ জানানো হয়েছে, ফাইটার জেটের ৮৫ শতাংশ তৈরি করবে স্ট্র্যাটেজিক পার্টনে বা ইন্ডিয়ান প্রোডাকশন এজেন্সি৷ চুক্তি সই করার দিন থেকে ৩ বছরের মধ্যে সেগুলি সেনার হাত পর্যন্ত পৌঁছে যেতে হবে বলেও শর্ত আরোপ করেছে বায়ুসেনা৷ জুলাই পর্যন্ত প্রস্তাব জমা নেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে ৷

সেনা সূত্রে খবর, এই জাতীয় ফাইটার জেট তৈরি করে আমেরিকার লকহেড মার্টিন ও বোয়িং৷ এছাড়া ফ্রান্সের দসাল্ত, সুইডেনের SAAB, ইউরোপের ইউরোফাইটার ও রাশিয়ার MiG এই জাতীয় বিমান তৈরি করে৷

কিছুদিন আগে ভারতীয় প্রতিরক্ষা দফতর জানায়, বেসরকারি প্রতিরক্ষা সংস্থায় তৈরি হবে ২৫০ টি ফাইটার জেট৷ এগুলি ব্যবহার করা হবে ভারতীয় বায়ুসেনার কাজে৷ ১০০টি সিঙ্গল ইঞ্জিন ফাইটার জেট তৈরি হবে ভারতে৷ এছাড়া ৯০টি ডবল ইঞ্জিন ফাইটার জেট তৈরি হবে৷ এছাড়া ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য প্রয়োজন ৫৭টি জেট৷ নেক্সট জেনারেশন এয়ারক্রাফট কেরিয়ারে ব্যবহারের জন্য নৌসেনায় ওই ৫৭টি জেট লাগবে৷ এছাড়া কমপ্লেক্স অ্যারোনটিক্যাল ইকোসিস্টেম তৈরির জন্যও বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে কথা বলবে কেন্দ্র৷ যার জন্য কয়েক হাজার কোটি টাকা খরচ হবে ৷

Leave a Reply