স্মিথ–ওয়ার্নার কী তবে বিদ্রোহের মাশুল দিচ্ছেন?

0
12
স্মিথ-ওয়ার্নারদের শাস্তিটা বেশি হয়ে গেছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

কেপ টাউন টেস্টে বল টেম্পারিং কলঙ্ক ছিটানোর শাস্তি পেয়েছেন স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট। আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে ১২ মাসের জন্য স্মিথ ও ওয়ার্নারকে নিষিদ্ধ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। ৯ মাস নিষিদ্ধ হয়েছেন ব্যানক্রফট। তাঁদের কৃতকর্মের তুলনায় শাস্তিটা বেশি ‘কঠোর’ হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই। পাশাপাশি ভারতের সাবেক ওপেনার গৌতম গম্ভীর তুলেছেন এক নতুন প্রশ্ন, স্মিথ-ওয়ার্নারদের এই শাস্তি কি তবে বোর্ডের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের মাশুল?

গত বছরের জুলাইয়ে পারিশ্রমিক নিয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েছিলেন দেশটির প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারেরা। এই বিদ্রোহের নেতৃত্বে ছিলেন ওয়ার্নার-স্মিথরা। গম্ভীর মনে করছেন, সেই বিদ্রোহ এই শাস্তিতে ভূমিকা রাখতে পারে। এ নিয়ে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস অধিনায়কের টুইট, ‘ক্রিকেটকে অবশ্যই দুর্নীতিমুক্ত রাখতে হবে কিন্তু অজিদের ওপর শাস্তিটা বেশি হয়ে গেছে বলে মনে হচ্ছে। স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার কি তবে পারিশ্রমিক বাড়ানো নিয়ে বিদ্রোহের মাশুল দিচ্ছেন? ইতিহাস বলছে, তাঁদের প্রশাসকেরা সবাইকে তিরস্কার করেছেন যারা খেলোয়াড়দের স্বার্থের পক্ষে ছিল। উৎকৃষ্ট উদাহরণ: ইয়ান চ্যাপেল।’

গম্ভীরের মতে, এই নিষেধাজ্ঞার চেয়ে প্রতারক তকমা নিয়ে বাঁচাটা তাঁদের জন্য বড় শাস্তি। যদিও স্মিথ-ওয়ার্নারের জন্য খারাপই লাগছে গম্ভীরের। অস্ট্রেলিয়ার এ দুই ক্রিকেটারের প্রতি অবশ্য অনেকেই সহানুভূতি দেখাচ্ছেন। কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকারের টুইট, ‘তাঁরা অনুশোচনায় দগ্ধ হবে এবং কৃতকর্মের ফল বহন করতে হবে জীবনভর। খেলোয়াড়দের সঙ্গে নিয়ে তাঁদের পরিবারকেও এই ধকল কাটিয়ে উঠতে হবে। আমাদের এখন তাই মনোযোগ ফিরিয়ে নিতে হবে, তাঁদের একটু শ্বাস নেওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে।’

ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলীও মনে করেন, স্মিথ-ওয়ার্নারদের শাস্তিটা বেশি ‘কঠোর’ হয়ে গেছে। সংবাদমাধ্যম ‘ইন্ডিয়া টুডে’কে তাঁর বক্তব্য, ‘আমার মতে এটা বেশি কঠোর হয়ে গেছে। বইয়ের দোকানে অপরাধবিষয়ক বইয়ের তাকে রাখা হয়েছে স্মিথের আত্মজীবনী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ায় সবাইকে ঠান্ডা করতে জেমস সাদারল্যান্ডকে (সিএর প্রধান নির্বাহী) কিছু একটা করতেই হতো। সে জন্যই এই চরম সিদ্ধান্ত।’ দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসির মতেও, স্মিথ-ওয়ার্নারদের শাস্তিটা বেশি হয়ে গেছে। সুত্রঃ প্রথম আলো।

Leave a Reply